in

কুমিল্লার সামনে সিলেটের অসহায় আত্মসমর্পন

“মাধ্যম” অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি।

বিপিএল: কাগজে কলমে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) এর ৮ম আসরে সবচেয়ে শক্তিশালী দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, অন্যদিকে সিলেট সানরাইজার্সকে গড়পড়তা দল বলাই চলে। মিরপুরে আজ দিনের ১ম ম্যাচে মুখোমুখি লড়াইয়ে তারই প্রমাণ দিল এই দুই দল। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বোলারদের সামনে অসহায় আত্মসমর্পন করে সিলেট সানরাইজার্স থেমেছে ৯৬ রান করে।

টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নামে সিলেট সানরাইজার্স। ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই অফ স্পিনার নাহিদুল ইসলাম তুলে নেন ওপেনার এনামুল হক বিজয়কে (৯ বলে ৩)। শুরুর জড়তা কাটানোর আগেই ফিরতে হয়েছে কাট খেলতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে। ওভারে নাহিদুল খরচ করেন মাত্র ২ রান।
পরের ওভারেই আক্রমনে আসেন ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত সময় কাটানো বাঁহাতি স্পিনার তানভীর ইসলাম, দেননি ৪ রানের বেশি। ইনিংসের ৫ম ও নিজের তৃতীয় ওভার করতে এসে অবশ্য কিছুটা খরুচে নাহিদুল, দেন ১৩ রান।

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে পেসার শহিদুল ফেরান কিছুটা আশার আলো দেখানো কলিন ইনগ্রামকে। শহিদুলের শর্ট বলকে লেগ সাইডে খেলতে গিয়ে এজ হন, ক্যাচ দেন শর্ট মিড উইকেটে আরিফুলকে ( ২১ বলে ২০)। পাওয়ার প্লে-তে সিলেটের স্কোরবোর্ডে ২ উইকেটে ৩৪।

তবে পাওয়ার প্লের পর যেন আরও নাজুক অবস্থা। টানা স্পেলে নিজের চতুর্থ ওভার করতে এসেই নাহিদুল তুলে নেন মোহাম্মদ মিঠুনকে (৭ বলে ৫)। অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেনকে ৩ রানের বেশি করতে দেননি তানভীর। তার ঘূর্ণিতে খাবি খেয়ে স্লিপে ক্যাচ দেন মোসাদ্দেক।

স্পিনে সুবিধা দেখে পেসার করিম জানাতকে আক্রমণে আনার চেয়ে পার্টটাইম মুমিনুল হককে বেছে নেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স অধিনায়ক ইমরুল কায়েস। নিজের দ্বিতীয় ওভারে মুমিনুল উপহার দেন উইকেটও, ফেরান রবি বোপারাকে (১৯ বলে ১৭)। ৫৮ রানেই নেই সিলেট সানরাইজার্সের ৫ উইকেট। প্রথম ১৩ ওভারে পেসাররা বল করেন মাত্র ২ ওভার।

মুস্তাফিজের করা ১৪তম ওভারে সিলেট হয়েছে আরও দিশেহারা, টানা চার ওয়াইডে ওভার শুরু। তবে পরের ৬ বৈধ ডেলিভারিতে ১ রান, সিলেট উইকেট হারায় ২ টি। অলক কপালি (১৪ বলে ৬) রান আউট হলেও খালি হাতে ফেরা মুক্তার আলি বোল্ড হয়েছেন ভেতরে ঢোকা বলই বুঝতে না পেরে।

এরপর সোহাগ গাজী ও কেসরিক উইলিয়ামস ২২ রানের জুটি গড়েন। কেসরিক উইলিয়ামসকে (৯) ফিরিয়ে যে জুটি ভাঙেন করিম জানাত। ১২ রান করা সোহাগ গাজীকে নিজের ২য় শিকারে পরিণত করেন মুস্তাফিজ। শেষ ওভারে তাসকিন আহমেদকে শহিদুল ইসলাম ফেরালে ৯৬ রানেই শেষ হয় সিলেটের ইনিংস।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পক্ষে সমান ২ টি করে উইকেট নেন নাহিদুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান ও শহিদুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে) সিলেট সানরাইজার্স ৯৬/১০ (১৯.১), বিজয় ৩, ইনগ্রাম ২০, মিঠুন ৫, বোপারা ১৭, মোসাদ্দেক ৩, কাপালি ৬, গাজী ১২, মুক্তার ০, কেসরিক ৯, তাসকিন ২, অপু ০*; নাহিদুল ৪-০-২০-২, মুস্তাফিজ ৪-০-১৫-২, তানভীর ৪-১-১০-১, শহিদুল ৩.১-০-১৫-২, মুমিনুল ২-০-১৪-১, জানাত ১-০-৭-১।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

GIPHY App Key not set. Please check settings

খুলনার ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা

কুমিল্লার ঘাম ঝরানো জয়