in , ,

গোপালগঞ্জে হত্যা মামলায় চার জনের যাবজ্জীবন

গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে তৎকালীন বিডিআর সদস্য হিরু মিয়া হত্যাকাণ্ডের দীর্ঘ ১৬ বছর পর চার আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সেই সাথে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে বিজ্ঞ আদালত। এ মামলার অপর ১৪ আসামিকে খালাস দেয়া হয়েছে।

সোমবার (৭ মার্চ) দুপুরে গোপালগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো: আব্বাস উদ্দীন সাজাপ্রাপ্ত চার আসামির উপস্থিতে এ রায় প্রদান করেন।
যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, আবু সাম ওরফে সামচুল হক, রওশন শেখ, লিয়াকত শেখ ও রাজা ফকির।

পলাতক খালাস পাওয়া আসামিরা হলেন, চুন্নু ফকির, গিয়াস উদ্দিন, ছিদ্দিক শেখ, ফিরোজ শেখ ও সেলিম। অন্যান্য খালাস প্রাপ্তরা হলেন, হাফিজুর রহমান, হবি শেখ, সাহা আলম ফকির, নিজাম ফকির, গোলাম রসুল, বাদশা মিয়া, সায়েদ আলী শেখ, মাহমুদ ফকির ও সালাউদ্দিন শেখ।

মামলার বিবরণে জানাগেছে, কাশিয়ানী উপজেলার কোড়ামারী গ্রামের বিডিআর সদস্য হিরু মিয়ার সাথে আসামিদের জমিজমা ও গ্রাম্য দলাদলি নিয়ে বিরোধ ছিল। হিরু ছুটিতে বাড়ি আসলে গত ২০০৫ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৮টার দিকে মসজিদ থেকে বাড়ি ফেরার পথে কোড়ামারী প্রাইমারী স্কুলের সামনে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে সাজাপ্রাপ্তরা। কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার হিরু মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরদিন ২৬ ফেব্রুয়ারি হিরুর স্ত্রী জোনাকী বেগম বাদী হয়ে ১৮ জনকে আসামি করে কাশিয়ানী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

দীর্ঘ শুনানী শেষে চার আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ৫০হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অপর ১৪ আসামিকে খালাস দেয় আদালত।

বাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি অ্যাডভোকেট মো: শহিদুজ্জামান খান ও আসামী পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট ফজলুল হক খান ও এ্যাডভোকেট মো: মিজানুর রহমান খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

GIPHY App Key not set. Please check settings

বাঙালির স্বাধীনতার সড়ক নির্মাণে অনন্য ৭ই মার্চের ভাষণ

আমরা রাজনীতির কবি হিসেবে দেখি বঙ্গবন্ধুকে