in ,

পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞায় পুতিন-ল্যাভরভ

আন্তর্জাতিক মাধ্যম : ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের ওপর একের পর এক নিষেধাজ্ঞা দিয়ে যাচ্ছে পশ্চিমা বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা।

যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), যুক্তরাষ্ট্রের পর রাশিয়ার শীর্ষ এ দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কানাডা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বলে আরটির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি বিভাগ পুতিন ও তার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ল্যাভরভের ওপর আনুষ্ঠানিক নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।

ট্রেজারি বিভাগের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ল্যাভরভকে পুতিনের ‘প্রধান প্রচারণাকারী’ (চিফ প্রপাগান্ডিস্ট) আখ্যা দেয়া হয়েছে।

কোনো রাষ্ট্রপ্রধানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের এমন নিষেধাজ্ঞা বিরল। এ বিষয়ে ট্রেজারি বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘প্রেসিডেন্ট পুতিন কিম জং উন, আলেকজান্দার লুকাশেঙ্কা ও বাশার আল আসাদের মতো গুটিকয়েক স্বৈরশাসকের দলভুক্ত হয়েছেন।’

নিরাপত্তা পরিষদে রাশিয়ার প্রতিনিধিত্বকারী আরও কয়েকজনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেন। তিনি ‘স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে বর্বরোচিত যুদ্ধের’ জন্য রাশিয়ার নেতৃত্বকে দায়ী করেন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার অটোয়াতে সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো বলেন, ‘মারাত্মক, সমন্বিত নিষেধাজ্ঞার’ অংশ হিসেবে এ ব্যবস্থা নিচ্ছে কানাডা।
তিনি বলেন, ইউক্রেনে মৃত্যু ও ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর জন্য যাদের দায় সবচেয়ে বেশি, তাদের ওপর এ নিষেধাজ্ঞা দেয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

GIPHY App Key not set. Please check settings

বান্দরবানে ৪ ছেলেসহ গ্রাম প্রধানকে হত্যা

সিরিজ বাংলাদেশের