in ,

বিশ্ববাজারে ফের বেড়েছে স্বর্ণের দাম

গেল সপ্তাহে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম কিছুটা বেড়েছে। এর মাধ্যমে টানা দুই সপ্তাহ বাড়লো স্বর্ণের দাম। অবশ্য এর আগে টানা চার সপ্তাহ স্বর্ণের দাম কমে। স্বর্ণের পাশাপাশি গেল সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে রূপার দাম। সেইসঙ্গে বেড়েছে আরেক দামি ধাতু প্লাটিনামের দাম।

সবশেষ সপ্তাহে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বেড়েছে শূন্য দশমিক ৫৮ শতাংশ। রূপার দাম বেড়েছে ২ দশমিক ৬৫ শতাংশ। আর প্লাটিনামের দাম বেড়েছে ৪ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

বিশ্ববাজারে টানা দুই সপ্তাহ স্বর্ণের দাম বাড়লেও দেশের বাজারে এখনো দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে বিশ্ববাজারে দাম বাড়ার প্রবণতা অব্যাহত থাকলে দেশের বাজারেও দাম বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) দায়িত্বশীলরা।

এ বিষয়ে বাজুস সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা জাগো নিউজকে বলেন, বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ার বিষয়টি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। যদি বিশ্বাজারে দাম বাড়ার এই ধারা অব্যাহত থাকে তাহলে আমরাও দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়াবো।

এদিকে বাজুসের একটি সূত্র জানিয়েছে, এখনই দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ানোর পক্ষে না বাজুস। তবে বিশ্ববাজারে যদি হুট করে স্বর্ণের দামে বড় উত্থান হয়, তাহলে দেশের বাজারেও দাম বাড়ানো হবে। বিশেষ করে বিশ্ববাজারে যদি প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম এক হাজার ৮২৫ ডলার অতিক্রম করে, তাহলে দেশের বাজারে দাম বাড়ানো হবে।

বিশ্ববাজারের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, গেল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম বেড়েছে শূন্য দশমিক ২১ ডলার বা শূন্য দশমিক শূন্য ১ শতাংশ। এতে সপ্তাহের ব্যবধানে স্বর্ণের দাম বেড়েছে শূন্য দশমিক ৫৮ শতাংশ বা ১০ দশমিক ২৮ ডলার।

ফলে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৮০৮ দশমিক ১২ ডলার। এর মাধ্যমে টানা দুই সপ্তাহে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম বাড়লো ২৫ দশমিক ৫৪ ডলার। এতে মাসের ব্যবধানে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বেড়েছে ১ দশমিক ১০ শতাংশ।

বিশ্ববাজারে স্বর্ণের এই দাম বাড়ার আগে টানা চার সপ্তাহ দরপতন হয়। এতে এক মাসের মধ্যে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম প্রায় ৭৯ ডলার বা ৪ দশমিক ২৪ শতাংশ কমে যায়।

বিশ্ববাজারে টানা দরপতন হতে থাকায় গত ১৫ ডিসেম্বর থেকে দেশের বাজারেও স্বর্ণের দাম কমিয়ে দেয় বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। এতে বর্তমানে সবচেয়ে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম হয়েছে ৭৩ হাজার ১৩ টাকা।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৬৯ হাজার ৯৮৪ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৬১ হাজার ২৩৬ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫০ হাজার ৯১৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

স্বর্ণের দাম কমানো হলেও রূপার দাম আগেরটাই বহাল রাখা হয়। ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রূপার মূল্য এক হাজার ৫১৬ টাকা। ২১ ক্যারেটের রূপার দাম এক হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের এক হাজার ২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রূপার দাম ৯৩৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

স্বর্ণের পাশাপাশি গেল এক সপ্তাহে রূপার দামও বেড়েছে। গেল এক সপ্তাহে ২ দশমিক ৬৫ শতাংশ বেড়ে প্রতি আউন্স রূপার দাম দাঁড়িয়েছে ২২ দশমিক ৯৪ ডলারে। এরপরও মাসের ব্যবধানে রূপার দাম কমেছে ২ দশমিক ৬৯ ডলার।

আরেক দামি ধাতু প্লাটিনামের দাম গত সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে শূন্য দশমিক ২০ শতাংশ। এতে প্রতি আউন্স প্লাটিনামের দাম দাঁড়িয়েছে ৯৭৪ দশমিক ৬০ ডলার। এরপরও মাসের ব্যবধানে প্লাটিনামের দাম এখনো ২ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ কম আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

GIPHY App Key not set. Please check settings

কুয়েতকে উড়িয়ে দিল টাইগার যুবারা

ডেলমিক্রন হতে পারে অমিক্রনের চেয়ে ভয়াবহ