in ,

ভারতে ওমিক্রনে প্রথম মৃত্যু

ভারতে ওমিক্রন করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে বুধবার (৫ জানুয়ারি)। যদিও ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে গত সপ্তাহে এবং এর আগেই তিনি দু’বার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ শনাক্ত হয়েছিলেন, তবুও এটিকে ওমিক্রন সম্পর্কিত মৃত্যু বলেই ধরছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

ভারতীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ৭৩ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি রাজস্থানের বাসিন্দা। গত ৩১ ডিসেম্বর রাজ্যের উদয়পুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, গত ১৫ ডিসেম্বর করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন ওই ব্যক্তি। এরপর জ্বর, কাশি ও রাইনাইটিসের উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

তার শারীরিক নমুনা জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য পাঠানো হয়। গত ২৫ ডিসেম্বর এর ফলাফল আসলে দেখা যায়, তিনি ওমিক্রনে আক্রান্ত। অবশ্য তার আগেই গত ২১ ডিসেম্বর নমুনা পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ শনাক্ত হন ওই লোক। ২৫ ডিসেম্বর আরও একবার পরীক্ষা করালে তাতেও নেগেটিভই দেখা যায়।

কিন্তু করোনামুক্ত হলেও শারীরিক নানা জটিলতা থাকায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাননি ওই রোগী। উদয়পুরের মুখ্য স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (সিএমএইচও) ডা. দিনেশ খারাদি জানিয়েছে, ওই লোক করোনা-পরবর্তী নিউমোনিয়ার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপের মতো অসুখে ভুগছিলেন। আর এগুলোর কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

তবে ভারতীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এটি ওমিক্রন সংক্রান্ত মৃত্যু বলে ধরা হবে। রাজস্থান সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগও এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ভারতে এ পর্যন্ত ২ হাজার ১৩৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ধরন শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৬৫৩ জন আক্রান্ত মহারাষ্ট্রে, এরপর দিল্লিতে রয়েছে ৪৬৪ জন।

ওমিক্রনের বিস্তার ঠেকাতে এরই মধ্যে ভারতের বেশ কিছু রাজ্য রাত্রিকালীন কারফিউসহ কঠোর বিধিনিষেধ জারি করেছে।সূত্র: এনডিটিভি, ইকোনমিক টাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

GIPHY App Key not set. Please check settings

নতুন ডিসি ১৩ জেলায়

ভারতে ট্রাক-বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৭