in ,

শিশুকে বিষাক্ত ইঞ্জেকশন দিয়ে হত্যার অভিযোগে পিতা আটক

চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকায় ইকবাল হোসেন নামের আড়াই মাস বয়সী এক শিশুর শরীরে বিষাক্ত ইঞ্জেকশন দিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে বুধবার রাতে শহরের একাডেমি মোড় থেকে ওই শিশুর পিতা ইখলাছ উদ্দীনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকালে মিতালী সংসারে কাজ করছিল। এ সময় শিশু ইকবালের কান্নার শব্দ পেয়ে মা দেখতে পায় তার বাবার ইখলাছের কোলে ইকবাল ছটফট করছে এবং বাঁ পা দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। এ সময় সে তার স্ত্রীকে বলে কিছুদিন আগে ছেলেকে টিকা দেওয়া হয়েছিল। টিকা দেওয়ার স্থান থেকে রক্ত বের হচ্ছে। এ সময় বাড়ির মালিক সাইফুল ইসলামের স্ত্রী শিল্পী খাতুন ও প্রতিবেশী লতা খাতুন এসে দেখতে পান, পায়ে টিকা দেওয়ার স্থানের পাশের একটি ছিদ্র দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। পরে শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিকেলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে কুষ্টিয়ার কাছাকাছি শিশুটি মারা যায়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের শিশু বিভাগের ডাঃ মাহবুবুর রহমান জানান, শিশু ইকবালকে ভর্তির সময় বাঁ পায়ে পাশাপাশি দুটি ছিদ্র দেখা গেছে। এর মধ্যে একটি ছিদ্র থেকে রক্ত বের হচ্ছিল। এ ছাড়া শিশুর শ্বাসকষ্ট ও খিঁচুনি হওয়ায় ওই অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। তবে ওই শিশুর শরীরে বিষাক্ত কিছু পুশ করা হয়েছিল কি না, সেটা এখনো নিশ্চিত নয়। ময়নাতদন্ত ও ফরেনসিক প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু সাইদ বলেন, শিশু ইকবালের মৃত্যুর ঘটনায় তাঁর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে ইখলাছ উদ্দীনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার রাতেই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার ইখলাছকে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

GIPHY App Key not set. Please check settings

মানিকগঞ্জে কবরস্থান থেকে ৯ কঙ্কাল চুরি

ইমরান খানের বিদায় ঘণ্টা বাজছে